রানীশংকৈলে দম্পতির কাছে ৫০ হাজার টাকা চাদাঁ আদায়ের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঠাকুরগাঁও: ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে উপজেলায় দম্পতির কাছে ৫০ হাজার টাকা চাদাঁ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে | ১৩ নভেম্বর ( সোমবার) বিকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায়-অভিযোগকারী আনোয়ারা বেগম(৪৮) গত ১৮ তারিখ মজিবর (৫৩)কে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। আনোয়ারা বেগম (ফুলু) উপজেলা ভান্ডারা পৌরশহরে ৫ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা।

আগের স্বামী তাকে তালাক দিয়েছেন এবং তিনি বেশ কিছু দিন প্রবাসে কাটিয়ে বাসায় এসে নব জীবন শুরু করেছেন মজিবরের সাথে। ২৪ তারিখ সকাল ৯ টায় আনোয়ারা বেগম স্বামী মজিবর এবং বাইকসহ আলেক,রবিউল তার বাড়িতে জিম্মি করে চাদা চেয়ে বসে। ভুক্তভোগী আনোয়ারা বেগম এবং তার স্বামী উপায় না পেয়ে ১০০০০ টাকা বিকাশের মাধ্যমে প্রেরণ করেন।

পরে আবার ১০০০০ টাকা চাদাঁ আদায় করেন এবং তৃতীয় ধাপে ৩০০০০ টাকা আদায় করেন এবং বাসায় গিয়ে হুমকি প্রদান করে আসেন কাউকে এ বিষয়ে জানাজানি করলে অবস্থা আরো ভয়ঙ্কর হবে। এ বিষয়ে সাক্ষী লিটনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন। আলেফ,রেজাউল, সুলতান এবং তাদের সাঙ্গপাঙ্গদের নিয়ে বাসায় এসে টাকা নিয়ে যান এবং বিভিন্ন প্রকার হুমকি- ধামকি দিয়ে যান।

এরা কিছুদিন আগে নিয়ানপুর স্কুলে আরো এক মহিলার কাছে চাদা আদায় করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। এ বিষয়ে আলেফ, রেজাউলের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন। মহিলাটার সম্বন্ধে সবাই জানে কেমন মহিলা সে। তার বাড়িতে এক পুরুষকে প্রায় বিচরণ করতে দেখি আমরা। তাই তাকে প্রশ্ন করি কে পুরুষটা এবং ফুলু তার স্বামী দাবী করলে আমরা কাগজ দেখতে চাই। তারা দেখাতে পারে নি এবং কাজী মাসুমের কাছে জানতে চাইলে তিনি বিয়ের কথা স্বীকার করেন। চাদাঁ আদায়ের কথাটা অসত্য এবং মিথ্যা।

খবরটি শেয়ার করুন....
© All rights reserved  2021 DesherGarjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
%d bloggers like this: