পিঠের চামড়া তুলে নেয়ার হুমকি দিলেন সোনারগাঁয়ের মেম্বার প্রার্থী রফিকুল ইসলাম

দেশের গর্জন, নিজস্ব প্রতিবেদক: সারা দেশের ন্যায় তৃতীয় ধাপে আসন্ন (২৮ নভেম্বর) ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নে ৬ নং ওয়ার্ড’র মেম্বার পদপ্রার্থী রফিকুল ইসলাম সরকার তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ও সমর্থকদের পিঠের চামড়া তুলে নেয়ার হুমকি দিয়েছেন, যা আইন বহির্ভূত ও নির্বাচন আচরণবিধি লংঘনের শামিল বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞমহল।

ইতোমধ্যে পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন পেয়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-আহবায়ক ও পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের সফল চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম। এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন না হলেও প্রতিটি ওয়ার্ড’র তুলনায় ৬নং ওয়ার্ড’এ একটি সুন্দর ও প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচনে উৎসবমূখর পরিবেশে ভোট প্রদান করে মেম্বারদের নির্বাচিত করবেন এমনটাই আশা করেছিলেন ভোটাররা।

একজন মেম্বার প্রার্থীর বক্তব্য “পিঠের চামড়া তুলে নেবো” যা বর্তমানে ওই ওয়ার্ড’র ভোটারদের মনে আতঙ্ক ও ক্ষোভ বিরাজ করছে। গত ২২ নভেম্বর সোমবার বিকেলে পিরোজপুর ইউনিয়নে ৬ নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী রফিকুল ইসলাম সরকারের এমন বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে মৃধাকান্দি গ্রামের ভোটার আল-ইসলামসহ অনেকেই জানান, নির্বাচনে জয় পরাজয় থাকবেই। রফিকুল ইসলাম সরকারের এমন বক্তব্যে মনে হচ্ছে উনি প্রশাসনের চেয়েও বেশি ক্ষমতাধর! তারা জানান, যারা জনগণকে ভালবাসেন তাদের মুখে এমন বক্তব্য প্রকাশ পাওয়া মানেই সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বহিঃপ্রকাশ।

এলাকাবাসী বলেন, আমাদের পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম একজন দক্ষ, সৎ ও জনবান্ধন নেতা। চেয়ারম্যান সাহেব নিজেও বলেছেন, মেম্বার প্রার্থীদের মধ্যে যাদের যোগ্যতা আছে জনগণ তাদের নির্বাচিত করে কাউন্সিলে পাঠাবে, উনি তাদের নিয়েই কাজ করবেন এবং একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে পিরোজপুরবাসীকে উপহার দিবেন।

তারা জানান, ৬নং ওয়ার্ড’র মেম্বার প্রার্থী রফিকুল ইসলাম সরকারের জনসম্মুখে এমন বক্তব্য আমাদের মনকেই শুধু আহত করেনি! মানববতার ফেরিওয়ালা খ্যাত চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শকেও লাঞ্চিত করেছে।

উল্লেখ্য, এ ওয়ার্ডে জাতীয়পার্টি নেতা রফিকুল ইসলাম সরকার “মোরগ” প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন এবং তার সাথে “আপেল” প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন জাতীয় শ্রমিকলীগ মেঘনা শিল্পাঞ্চল শাখার যুগ্ম-আহবায়ক ও সাবেক মেম্বার আব্দুল হালিম।

এবিষয়ে জানতে চাইলে, আব্দুল হালিম বলেন, আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে মনে-প্রাণে লালন করেই রাজনীতি করি, মেম্বার নির্বাচিত না হলেও আমি এই এলাকার মানুষের সেবা করে যাবো। তিনি বলেন, আল্লাহ’ই সকল ক্ষমতার উর্ধে, আমি হুমকি ধামকি বুঝিনা, ভালবাসা দিয়েই জনগণের ভোটে আবারও নির্বাচিত হবো ইনশাআল্লাহ।

খবরটি শেয়ার করুন....
© All rights reserved  2021 DesherGarjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
%d bloggers like this: