বিজ্ঞানীদের আশঙ্কা টোঙ্গার পরিবেশ দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতির মুখে পরেছে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করেছে স্বামী জাবিতে নারী শিক্ষার্থীদের নিয়ে শাবিপ্রবি ভিসির মন্তব্যের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও কুশপুত্তলিকা দাহ সাটুরিয়ায় গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টার মামলায় গ্রেপ্তার-১ পূর্বাচলে হারিয়ে যাওয়া দুই যুবককে ৯৯৯ এর কলে উদ্ধার মানিকগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে ডাকাতি!  ফুলপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিশু নিহত মানিকগঞ্জে ভুল চিকিৎসা দিয়ে কলেজ ছাত্রকে হত্যার অভিযোগ! সাটুরিয়ায় সাবেক চেয়ারম্যানের ভাই মাদকসহ আটক জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের রূপগঞ্জে গভীর রাতে ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে আগুন

মা হতে চলেছে পাগলী, বাবা হয়নি কেউ

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি: শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) বাংলাদেশে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক সময়ের ভাইরাল একটি কথা হলো মা হতে চলেছে পাগলী, বাবা হয়নি কেউ। ঠিক এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলার আমবাড়ীয়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের নতুন সুতাইল গ্রামে।

১৬ বছর বয়সি স্কুল পড়ুয়া প্রতিবন্ধী এক তরুনীকে একাধিক ব্যক্তি দ্বারা ধর্ষণ এবং পরবর্তীতে ওই তরুনীর গর্ভে চার মাসের সন্তান রয়েছে বলে জানা গেছে। কিন্তু একাধিক ব্যক্তি দ্বারা ধর্ষণের শিকার হওয়া ওই তরুনী নিজেও জানেনা তার গর্ভের সন্তান কার। ভুক্তভোগী ঐ প্রতিবন্ধী তরুনীর ভাষ্য মতে, সে এযাবৎ চার জন ব্যক্তি দ্বারা ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

এখন থেকে পাঁচ মাস আগে নতুন সুতাইল গ্রামের মৃত নুমাজ আলীর পুত্র সাফায়েত হোসেন তাকে ভুট্টা ক্ষেতের মধ্যে ধর্ষণ করে। এরপর সাফায়েত তাকে আরো একবার মিরপুর উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন চলাকালীন সময়ে ধর্ষণ করেন। তরুণীর ভাষ্যমতে আরো জানা যায়, শাফায়েতের সাথে তার ভালোবাসার সম্পর্ক ছিল। এছাড়াও ওই তরুণী জানান, সে তার চাচাতো ভাই দিপুর দ্বারাও সে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন।

এখন থেকে চার-পাঁচ মাস আগে একই এলাকার মতির বাড়ীতে জোর পূর্বক তাকে ধর্ষণ করে দিপু। দিপু নতুন সুতাইল গ্রামের ইছাহক আলী (ইছা)’র পুত্র। তরুণী আরো জানান, নতুন সুতাইল গ্রামের দাউদ আলীর পুত্র মতিয়ার রহমান মতি তাকে মতির নিজের বাড়ীতে দুইবার ধর্ষণ করেছে। তিনি আরো জানান মতিয়ার রহমান মতি তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে ধর্ষণ করেছে।

এছাড়াও ওই তরুণীকে তার আপন দুলাভাই নতুন সুতাইল গ্রামের আনছার আলীর পুত্র সুলতান গত দুই বছর ধরে কমপক্ষে ২০ বার ধর্ষণ করেছে বলে জানান ভুক্তভোগী ঐ তরুণী। ভুক্তভোগী ওই তরুণী বিষয়টি তার ভাবি কল্পনাকে জানালে, কল্পনা তাকে অন্য কারো কাছে বলতে নিষেধ করেন। যদিও বিষয়টি কল্পনা অস্বীকার করেন।

এদিকে এই বিষয়টিকে অন্যদিকে প্রবাহিত করতে এলাকার মাতুব্বর সহ একাধিক ব্যক্তি উঠে পড়ে লেগেছেন বলে জানা গেছে। জানা যায় গত ১২ নভেম্বর সাদা কাগজে স্বাক্ষর করিয়ে ভুক্তভোগী ওই তরুণীর সাথে জোর পূর্বক সাফায়েতের বিয়ে দেয় এলাকাবাসী। বিয়ের কাজী হিসেবে স্থানীয় মসজিদের মুয়াজ্জিন আব্দুল হামিদকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। সে নতুন সুতাইল গ্রামের মোসলেম সর্দারের পুত্র।

খবরটি শেয়ার করুন....
© All rights reserved  2022 DesherGarjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
%d bloggers like this: