তারাকান্দায় প্রতিমায় চলছে তুলির আঁচড়

মোঃ আনোয়ার হোসেন, তারাকান্দা প্রতিনিধি: ক’ দিন পরই সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। এই উৎসব উপলক্ষে এবার তারাকান্দা উপজেলায় ৫৩টি মণ্ডপে হবে দুর্গাপূজা। ইতিমধ্যে প্রতিমা তৈরি কাজ শেষ হয়েছে। এখন রঙ-তুলির শেষ আঁচড় দিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন মৃৎশিল্পীরা। আগামী ১১ অক্টোবর ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে শুরু হবে দুর্গাপূজা। বিজয়া দশমীর মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকতা শেষ হবে ১৫ অক্টোবর।

উপজেলার পূজা মণ্ডপগুলো ঘুরে দেখা গেছে, সময় এগিয়ে আসায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মাঝে পূজা উৎসবের প্রস্তুতির ব্যস্ততা বেড়েছে। তারাকান্দার পূজা মণ্ডপগুলোয় চলছে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা। খড়, বাঁশ, সুতলি ও মাটি তৈরির কাজও শেষ। প্রতিমায় চলছে রং-তুলির কাজ। কোনো কোনো প্রতিমার গায়ে পরানো হচ্ছে রং-বেরঙের শাড়ি, হাতের ব্রেসলেট, বালাসহ বিভিন্ন ধরনের গয়না। পাশাপাশি চলছে সাজানো ও লাইটিংয়ের কাজ।

তারাকান্দা পূজা উদ্‌যাপন কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক শাওন কিশোর ধর বলেন, দুর্গাপূজা হচ্ছে সর্বজনীন উৎসব। এটি যদিও হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুষ্ঠান, তবে উৎসব হচ্ছে সকলের। বিভিন্ন সম্প্রদায় ও জাতির বসবাস, সকলে মিলে প্রতি বছর আমরা সুষ্ঠুভাবে এই উৎসব উদ্‌যাপন করে আসছি। আশা করি, এবারও আমরা সকলে মিলেমিশে এ উৎসব করতে পারব। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, গত বছর উপজেলা ৫০টি মণ্ডপে পূজার আয়োজন করা হয়েছিল।

এ বছর আরও তিনটি মণ্ডপে পূজার প্রস্তুতি নিয়েছেন সনাতন সম্প্রদায়ের মানুষ। এতে এবার মণ্ডপের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৩ টিতে। তারাকান্দা উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অনুপ কুমার পন্ডিত বলেন, দুর্গোৎসবকে ঘিরে পূজা মণ্ডপগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে প্রশাসন। পাশাপাশি আমাদের উদ্যোগে একটি মনিটরিং সেল গঠন করা হয়েছে। তাঁরা প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় করে আইন-শৃঙ্খলার পাশাপাশি সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে উৎসাহিত করবে।

তারাকান্দা পূজা উদ্‌যাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিজন চন্দ্র শর্মা বলেন, এ বছর ৫৩টি মণ্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। ইতিমধ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। মণ্ডপগুলোর সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে নিজেদের লোকজনসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজনও কাজ করবে। সবার সহযোগিতায় নির্বিঘ্নে পূজা উদ্‌যাপন করতে পারব বলে আশা করছি। তারাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের বলেন, শারদীয় দুর্গাপূজায় যেন কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, সে জন্য প্রশাসন সজাগ থাকবে। হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা যাতে নির্বিঘ্নে তাদের উৎসব পালন করতে পারে সে বিষয়ে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

খবরটি শেয়ার করুন....
© All rights reserved  2021 DesherGarjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
%d bloggers like this: