স্বামী কর্তৃক স্ত্রীকে হত্যা চেষ্টা

গর্জন ডেস্ক: ঢাকায় স্বামী কর্তৃক স্ত্রীকে হত্যা চেষ্টায় আহত অবস্থায় স্ত্রী পালিয়ে প্রাণে রক্ষা পেল। দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার কাজিহাল ইউপির মইচান্দা (কুশপাইন) গ্রামের  আনোয়ার হোসেনের কন্যা মোছাঃ আঁখি প্রিয়া (১৮) এর সাথে কাজিহাল ইউপি’র পারইল গুটগাছা গ্রামের মামুনুর রশীদ এর পুত্র মোঃ মাসুদ রানা (৩০) এর সাথে ২০২০ সালে পারিবারিকভাবে উভয়ের মধ্যে বিবাহ হয়। বিবাহের পর থেকে দু’জনের মধ্যে ভালোই সম্পর্ক ছিল। গত ১ মাস আগে আঁখি প্রিয়ার স্বামী মোঃ মাসুদ রানা তাকে ঢাকায় নিয়ে গিয়ে মিরপুর-০২ এলাকায় বসবাস করছিলেন। মাসুদ রানা সেখানে ইন্টার্ন করছিলেন।

গত ৬ জানুয়ারি তার মিরপুর বাসায় স্ত্রী আঁখি প্রিয়ার সাথে এক প্রকার কথা কাটাকাটি শুরু হলে আঁখি প্রিয়াকে স্বামী মাসুদ রানা  বেদম মারপিট করতে থাকে ও হত্যার চেষ্টা চালায়। এ সময় গুরুত্বর জখম হয়ে মোছাঃ আঁখি প্রিয়া দৌড়ে দিয়ে ঘর থেকে বেড়িয়ে অন্য লোকজনের সহযোগিতা নিয়ে তার পিতা আনোয়ার হোসেনকে মোবাইল ফোনে খবর দিলে মেয়েকে বাঁচাতে দ্রুত স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতা নিয়ে আহত অবস্থায় রাতেই গাড়িতে তুলে দিলে ফুলবাড়ীতে আজ শুক্রবার ভোর সাড়ে ৪টায় গাড়ি থেকে নেমে তাকে ফুলবাড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য  কমপ্লেক্সের ২৬নং বেডে ভর্তি করেন এবং ডাক্তার চিকিৎসা পত্র প্রদান করেন।

এ বিষয়ে মোছাঃ আঁখি প্রিয়ার সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমার গর্ভে ৪ মাসের বাচ্চা রয়েছে। আমাকে প্রথমে গলা টিপে হত্যার চেষ্টা করে। অনেক কষ্টে আমি মারপিট অবস্থায় ঘর থেকে অসুস্থ অবস্থায় দৌড় দিয়ে পালিয়ে যাই এবং স্থানীয় লোকজনেরা সহযোগিতা করে। এই অবস্থায় ফিরে আসি।

এই ঘটনায় মাসুদ রানাকে তার ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে ফোন দিলে তার ফোনটি  বন্ধ পাওয়া যায়। এই ঘটনায় মোছাঃ আঁখি প্রিয়ার পিতা মোঃ আনোয়ার হোসেনের সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমি আইনগত ব্যবস্থা নিব। যেহেতু আমার মেয়েকে হত্যার চেষ্টা করেছে।

মোছাঃ আঁখি প্রিয়ার শরীরে বিভিন্ন জায়গায় মারপিটের চিহ্ন রয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফুলবাড়ী থানায় কোনও মামলা দায়ের হয়নি।

খবরটি শেয়ার করুন....
© All rights reserved  2022 DesherGarjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
%d bloggers like this: