মানিকগঞ্জে সরকারি হাসপাতালে ডিউটি ফাঁকি দিয়ে প্রাইভেটে ব্যস্ত ডাক্তার এমদাদুল হক সোনারগাঁয়ে জালিয়াতির মামলায় মোঃ মজিবুর রহমান গ্রেফতার রূপগঞ্জে অবৈধ গ্যাসলাইন বিস্ফোরনে জ্বলসে গেলো ভাড়াটিয়া আগামী কয়েকদিনের মধ্যে তেল সংকট কেটে যাবে: বাণিজ্যমন্ত্রী ফুলপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় বাসের এক হেলপার নিহত, আহত শিশু সহ বেশকিছু যাত্রী সোনারগাঁয়ে আরমান হত্যার সাত বছর পেরিয়েও বিচার না পেয়ে সংবাদ সম্মেলন বড়াইগ্রামের পদ্মবিলের সৌন্দর্য নষ্ট করে চলছে পুকুর খনন আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টির ভূমিকা থাকবে গুরুত্বপূর্ণ: লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি  দেবরকে গলা টিপেই মে’রে ফেললেন ভাবি! ফুলপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় আওয়ামীলীগ নেতা নিহত

বান্দরবানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও জীববৈচিত্র্য বিলীন হচ্ছে

লোকমান হোসেন পলা: পাহাড়ি জেলা বান্দরবানে অব্যাহত বন ধ্বংসের কারণে জীববৈচিত্র্য হুমকীর মুখে । নষ্ট হচ্ছে পরিবেশের ভারসাম্য। দিনদিন প্রাকৃতিক সৃষ্ট বন ও সংরক্ষিত বনাঞ্চলে বৃক্ষ নিধন চলছেই। উপরন্ত প্রতিবছর সনাতনী পন্থায় উপজাতিদের জুম চাষের ফলেও বনধ্বংস হচ্ছে। ফলে বন্যপ্রাণিরা আবাসস্থল হারিয়ে সংকটের মূখে পড়ে বিলীন হচ্ছে। বান্দরবানের প্রতিনিয়ত প্রাকৃতিক পরিবেশের দূষণ ঘটছে ব্যাপক হারে। দিন দিন বদলে যাচ্ছে জলবায়ু পরিস্থিতি।

দূষণের ঝুঁকিতে পড়ে মানুষসহ সকল উদ্ভিদ ও প্রাণীর জীবন ধারণে বিঘ্ন ঘটেছে, ফলে স্থানীয়দের মধ্যে বাড়ছে উৎকন্ঠা। পরিবেশের মাটি, পানি ও বায়ু, মাটির ওপরের পানি এমনকি ভূগর্ভস্থ পানি কোনো কিছুই নিরাপদে নেই। জেলা জুঁড়ে অবাধে পাহাড় কাটা, বৃক্ষ নিধন, পাহাড় খুঁড়ে পাথর উত্তোলন, জমিতে মাত্রাতিরিক্ত কীটনাশক ব্যবহার, তামাক চাষ, পাহাড়ের ভিতর ইটভাটা ও করাত কল স্থাপন করা হচ্ছে। যা আবহাওয়ার বিরূপ আচরণ ও জলবায়ু পরিবর্তনে মারাত্মক প্রভাব ফেলছে। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পরিবেশের ভারসাম্য, দেখা দিচ্ছে মানুষের শরীরে নানা রোগ ব্যাধি।

পরিবেশবাদীদের মতে, এ অবস্থার পরিবর্তন করা না গেলে; পরিবেশ ও জলবাযু পরিস্থিতি আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের জন্য হয়ে উঠবে চরম হুমকিস্বরূপ। সামগ্রিকভাবে পরিবেশ দূষণের মাত্রা ভয়াবহ আকার ধারণ করলেও জন সচেতনতা বাড়াতে প্রশাসনের নেই তেমন কোন কার্যকরী উদ্যোগ। স্থানীয় বাসিন্দা ও পরিবেশবাদীদের অভিযোগ, প্রভাবশালীরা বিভিন্ন কৌশলে সংরক্ষিত বনাঞ্চলের জমি দিন দিন গ্রাস করার কারনে সবুজ বেষ্টিত বন ধীরে ধীরে সংকুচিত হয়ে যাচ্ছে।

বন বিভাগ ভূমি ব্যবস্থাপনা শক্তিশালী করে প্রভাবশালীদের হাত থেকে সংরক্ষিত বনাঞ্চলের জমি রক্ষা করতে না পারলে আগামী কয়েক দশকের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম মাতামুহুরী ও বমু রিজার্ভসহ জীববৈচিত্র্য হারিয়ে যাবে। শুধু তাই নয়, ব্যক্তি মালিকানাধীন বনভূমিগুলোর ওপরও সৃজিত গাছ কেটে ন্যাড়া করে ব্যাপক হারে ঘরবাড়ি নির্মাণ করা হচ্ছে।

এতেও উজাড় হচ্ছে হচ্ছে গাছপালা তথা বনভূমি। অপরদিকে, নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে জেলার ৭টি উপজেলায় বনের ভেতর বৈধ ও অবৈধভাবে একের পর এক করাতকল গড়ে উঠছে। করাতকলগুলোতে হাজার হাজার গাছ চেরাই করার ফলে উজাড় হচ্ছে বন। এদিকে পাহাড় খুঁড়ে অবাধে পাথর উত্তোলন করার ফলে পাহাড়ের ওপর সৃজিত গাছ ধবংস হওয়ার ফলে হারিয়ে যাচ্ছে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও জীববৈচিত্র্য, ধ্বংস হচ্ছে প্রাকৃতিক পরিবেশ।

খবরটি শেয়ার করুন....
© All rights reserved  2022 DesherGarjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar