মানিকগঞ্জে সরকারি হাসপাতালে ডিউটি ফাঁকি দিয়ে প্রাইভেটে ব্যস্ত ডাক্তার এমদাদুল হক সোনারগাঁয়ে জালিয়াতির মামলায় মোঃ মজিবুর রহমান গ্রেফতার রূপগঞ্জে অবৈধ গ্যাসলাইন বিস্ফোরনে জ্বলসে গেলো ভাড়াটিয়া আগামী কয়েকদিনের মধ্যে তেল সংকট কেটে যাবে: বাণিজ্যমন্ত্রী ফুলপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় বাসের এক হেলপার নিহত, আহত শিশু সহ বেশকিছু যাত্রী সোনারগাঁয়ে আরমান হত্যার সাত বছর পেরিয়েও বিচার না পেয়ে সংবাদ সম্মেলন বড়াইগ্রামের পদ্মবিলের সৌন্দর্য নষ্ট করে চলছে পুকুর খনন আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টির ভূমিকা থাকবে গুরুত্বপূর্ণ: লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি  দেবরকে গলা টিপেই মে’রে ফেললেন ভাবি! ফুলপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় আওয়ামীলীগ নেতা নিহত

কৃষক লীগ নেতা মানিক সরদার হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

Exif_JPEG_420

মাদারীপুর প্রতিনিধি: কৃষকলীগ নেতা মানিক সরদারকে হত্যাকারীদের ফাসির দাবিতে রোববার (২০ মার্চ) মাদারীপুরে এক মানববন্ধন করেছে উপজেলা কৃষকলীগ ও আলীনগর ইউনিয়নবাসী। গত ৭ই ফেব্রুয়ারী কালকিনি উপজেলার ফাঁসিয়াতলা বাজারের কাছে মানিক সরদার (৫০) নামের এক কৃষকলীগ নেতাকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

নিহত মানিক সরদার একই এলাকার আলমগীর সরদারের ছেলে। কালকিনি উপজেলা কৃষকলীগের কৃষক বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন তিনি। মানববন্ধনে দীর্ঘদিন ধরে আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুড়ে বেড়ালেও থানা পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করে না বলেও অভিযোগ তুলেন নিহত মানিক সরদারের স্ত্রী খানম। আসামিরা সবাই নাকি হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে এসেছে। এত বড় একটা হত্যা হলো, অথচ দুজন আসামি ছাড়া কেউ আর গ্রেপ্তার হলো না বলেও ক্ষোভ প্রকাশ করেন তার স্ত্রী।

মাদারীপুরের কালকিনিতে কৃষক লীগ নেতা মানিক সরদার হত্যা মামলায় আসামিদের গ্রেপ্তার ও দ্রুত বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও সড়ক অবরোধ করেছে স্বজন ও এলাকাবাসী। মাদারীপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে রোববার (২০ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে মানববন্ধন করেন তারা। এরপর মাদারীপুর-শরীয়তপুর শেখ হাসিনা সড়ক অবরোধ করেন তারা।

গত (৭ ফেব্রুয়ারি) কালকিনি উপজেলা কৃষক লীগের কৃষিবিষয়ক সম্পাদক মানিক সরদারকে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠে আলীনগর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান ওরফে মিলন সরদারের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় দুই দিন পরে হাফিজুরকে প্রধান আসামি করে ১৭ জনের নামে কালকিনি থানায় একটি হত্যা মামলা করেন নিহতের স্ত্রী সীমা খানম।

মামলার পর দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইশতিয়াক আসফাক রাসেল বলেন, ‘আসামিরা প্রায় সবাই হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে এসেছেন। জামিন ছাড়া যারা আছেন, সে রকম দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা বর্তমানে জেল-হাজতে আছেন। ‘এরপরও মামলার অগ্রগতি জেলার গোয়েন্দা পুলিশ তদারকি করছে। আমরাও থানা থেকে তাদের সহযোগিতা করছি। পুলিশের কোনো গাফিলতি নেই।

খবরটি শেয়ার করুন....
© All rights reserved  2022 DesherGarjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar